রবিবার, ৩ মার্চ, ২০২৪, ১৯ ফাল্গুন, ১৪৩০
Live TV
সর্বশেষ

খোকসায় ১০টি পোশাক দোকানে দুর্ধর্ষ চুরি

দৈনিক দ্বীনের আলোঃ
২৮ জানুয়ারি, ২০২৪, ৩:০১ এএম | 28
খোকসায় ১০টি পোশাক দোকানে দুর্ধর্ষ চুরি
২৮ জানুয়ারি, ২০২৪, ৩:০১ এএম | 28

 

খোকসা প্রতিনিধিঃ

কুষ্টিয়ার খোকসায় একরাতে ১০ দোকানের সাটার ভেঙ্গে চুরির ঘটনা ঘটেছে। অধিকাংশ দোকান থেকে নগদ অর্থ ও স্বর্ণালংকারসহ মোট ১৫ লাখ টাকার মালামাল চোরে নিয়ে গিয়েছে বলে জানা যায়।

চুরি হওয়া পোশাক দোকান গুলোর মধ্যে রয়েছে রিপন ড্রেস কর্নার, শাকিল ফ্যাশান, আর এম ফ্যাশান, বাদশা ফ্যাশান হাউস ও সজীব ফ্যাশান উল্লেখ যোগ্য হারে ক্ষতির শিকার হয়েছেন।

শাকিল ফ্যাশান মালিক শাকিল জানান, ঢাকায় পোশাক আনতে যাওয়ার জন্য ১ লাখ ৬০ হাজার টাকা দোকানের ক্যাশে রেখে ছিলাম। সেই টাকা চোরেরা নিয়ে গেছে।

রিপন ড্রেস কর্ণারের মালিক জানান, দীর্ঘ দিন ধরে এই মার্কেটে ব্যবসা করছি। বাজারে প্রতি মাসে চুরির ঘটনা ঘটলেও এই মার্কেটে চুরি ডাকাতি হয়নি। সেই ভরসায় স্ত্রীর দেড় ভরি সোনার গহনা ও নগদ ৭০ হাজার টাকা ক্যাশে রেখে গিয়েছিলাম। সবই চোরেরা নিয়ে গেছে।

ভুক্তভোগি ব্যবসায়ীরা জানান, শুক্রবার দিনগত গভীর রাতে উপজেলা সদরের অপর্ণা সিনেমা হল মার্কেটের নিচতলার ১০টি দোকানে এ চুরির ঘটনা ঘটে। চোরচক্র প্রথমে মার্কেটের একমাত্র সিসি ক্যামেরাটি ভেঙ্গে ফেলে। এর পর পর্যায়ক্রমে মার্কেটের পেছনের দিকের দোকান গুলোর সাটারের মাঝ খানে বাঁকিয়ে একেএকে দোকান গুলোর ভিতরে প্রবেশ করে। চোরেরা দোকান থেকে কোন প্রকার পণ্য নেয়নি। প্রতিটি দোকানের ড্রয়ার ও ক্যাশ টেবিল ভেঙ্গে নগদ টাকা ও স্বর্ণালঙ্কার নিয়ে গেছে। তারা মার্কেটের পেছন দিয়ে প্রবেশ করেছে বলে ব্যবসায়ী ও মার্কেটের মালিক মনে করছেন। থানা পুলিশ সরেজমিন এসে ব্যবসায়ীদের সাথে কথা বলেছেন।

মার্কেটের মালিক আমজাদ হোসেন খোকন বলেন, ৩০ বছর আগে মার্কেট চালু হয়েছে। এ সময়ে বাজারে প্রায় শতাধিকবার চুরি হলেও তার মার্কেট নিরাপদ ছিলো। ব্যবসায়ীদের ক্ষতি হওয়া তিনি গভীর ভাবে ব্যথিত। তিনি এ চুরির সাথে জড়িতদের চিহ্ণিত করার ও বন্ধে প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনায় জোর দাবি জানান।

খোকসা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আননুর জায়েদ জানান, চুরির ঘটনা জানার সঙ্গে সঙ্গে আমি ঘটনা স্থল পরিদর্শন করেছি। চুরির বিষয়ে থানা পুলিশ তদন্তে নেমেছে।

error: Content is protected !!